মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
নৌকা বিজয়ী হলে সমাজে সম্প্রীতির বন্ধন দৃঢ় হয় : কামরান  » «   ধানের শীষের সমর্থনে নগরীর বিভিন্ন জায়গায় নির্বাচনী পথসভা  » «   সাইফুর রহমান ডিগ্রি কলেজের প্রিন্সিপালকে হাসপাতালে দেখতে ইমরান আহমদ এমপি  » «   ছাতকে নবনিযুক্ত প্রধান শিক্ষকদের বরণ  » «   নৌকার পক্ষে সিলেটে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে: সরওয়ান হোসেন  » «   প্রবাসে বাঙালী সংস্কৃতি ও দেশীয় পণ্যকে তুলে ধরার প্রয়াসে নিউইয়র্কের ব্রঙ্কসে ঈদ আনন্দমেলা  » «   দেশকে এগিয়ে নিতে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই: সামাদ চৌধুরী  » «   আরিফের গণসংযোগ: সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচন হলে জনগণ সত্যিকার নগর সেবককেই নির্বাচিত করবে  » «   স্বভাবে বিনয়ী কামরান কর্মে ফাটা কেষ্ট আরিফ !  » «   ইলিয়াস আলীর সন্ধান কামনায় ইলিয়াস মুক্তি যুব ও ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের দোয়া মাহফিল  » «  

নতুন বছরে প্রথম দিনেই জন্ম নিবে ৮ হাজারের বেশি শিশু



নিউজ ডেস্ক::  শুরু হলো আরো একটি নতুন বছর। নতুন বছরের প্রথম দিনে বাংলাদেশে প্রায় ৮৩৭০টি শিশু জন্মগ্রহণ করবে। পুরো বিশ্বে নতুন বছরের প্রথম দিনে যত শিশু জন্ম গ্রহণ করবে এটি সে হিসেবে ২.১৭ শতাংশ। জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ এ তথ্য দিয়েছে।

ইউনিসেফ জানিয়েছে, পৃথিবীজুড়ে নতুন বছরের প্রথম দিনে প্রায় তিন লক্ষ ছিয়াশি হাজার শিশু জন্ম গ্রহণ করবে। ২০১৮ সালের প্রথম শিশুটির জন্ম হয়েছে সম্ভবত প্রশান্ত মহাসাগরের ছোট দ্বীপ কিরিবাটিস ক্রিসমাস আইল্যান্ডে। নতুন বছরের প্রথম দিনে সবচেয়ে পরে শিশুটির জন্ম হবে যুক্তরাষ্ট্রে।

ইউনিসেফ বলছে নতুন বছরের প্রথম দিনে সবচেয়ে বেশি শিশু জন্মগ্রহণ করবে ভারতে যার সংখ্যা প্রায় ৬৯ হাজার। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে চীন যেখানে প্রায় ৪৫ হাজার শিশু জন্ম নেবে। এ তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান নবম।

নতুন জন্ম নেওয়া এসব শিশুদের মধ্যে অনেকেই বেঁচে থাকবে। আবার এদের মধ্যে অনেকেই জন্মের প্রথম দিনেই মারা যাবে। ২০১৬ সালে পৃথিবীজুড়ে যত শিশু জন্মগ্রহণ করেছিল তাদের মধ্যে প্রতিদিন প্রায় ২৬০০ শিশু জন্মের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মারা গেছে।

ইউনিসেফ বলছে যেসব শিশু মারা গেছে তাদের মধ্যে ৮০ শতাংশ শিশুর মৃত্যু ঠেকানো সম্ভব ছিল। কারণ তারা মারা গেছে প্রতিরোধ করা যায় এমন সব কারণে। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই জন্ম নেওয়া, জন্মদানের পদ্ধতিতে জটিলতা এবং জন্মের পর নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে অনেকে শিশু মারা গেছে। এসব শিশুর জীবন রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে দেশগুলোকে আহ্বান জানিয়েছে ইউনিসেফ।

সংস্থাটি বলছে, শিশু মৃত্যু রোধ করার ক্ষেত্রে গত দুই দশকে বেশ অগ্রগতি হলেও পাঁচ বছর বয়সের মধ্যে যত শিশু মারা যায় তাদের মধ্যে ৪৬ শতাংশের মৃত্যু হয় জন্মের এক মাসের মধ্যে। তথ্যসূত্র : বিবিসি