শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে একই দিনে ২ ছাত্র নিখোঁজ!



কমলগঞ্জ প্রতিনিধি:: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার স্কুল ও মাদ্রসার দুই ছাত্র একই দিনে নিখোঁজের সাত দিনেও খোঁজ মিলেনি দু’জনের। আদৌ কি, নিখোঁজ হওয়া ছাত্ররা ফিরে আসবে কিনা তাদের স্বজনদের কাছে? সেই সংশয়ে দিন পার করছেন দুটি পরিবারের সদস্যরা।
এমনি একটি ঘটনা ঘটেছে উপজেলার সীমান্তবর্তী ইসলাম পুর ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামে। নিখোঁজ হওয়া দুই ছাত্রের অভিভাবকদের ও স্হানীয়দের সাথে আলাপকালে জানা যায়,
গত ৩০ শে নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল অনুমানিক ৩ টায় শ্রীপুর গ্রামের কৃষক চেরাগ মিয়ার পুত্র মাধবপুর নোওয়াগাঁও তালিমুল কোরআন মাদ্রাসার ৫ম শ্রেণীর ছাত্র মোঃ হাবিবুর রহমান তারেক (১১) বাড়ীতে ছুটি শেষে মাদ্রাসায় ফেরার পথে অপর জন শ্রীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্র একই গ্রামের ছমদু মিয়ার পুত্র সাহিদ মিয়া (১০) স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে নিখোঁজ হয়।
দীর্ঘ এক সপ্তাহ ধরে সম্ভাব্য সকল স্থানে অনেক খোঁজাখুঁজি করার পরও তাদের দু’জনের সন্ধান পাওয়া যায়নি। এদিকে ছেলেদের কে হারিয়ে তাদের পিতা মাতারা বাকরূদ্ধ হয়ে পড়েছেন।
নিখোঁজ হওয়ার সময়ে তারেকের পরনে ছিল আকাশী রঙের পাঞ্জাবী,পায়জামা ও সাদা টুপি। অন্যদিকে শাহিদের পরনে ছিল নীল রঙের স্কুল ড্রেস। নিখোঁজ হওয়ার এক সপ্তাহ তাদের দু’জনকে সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজে না পেয়ে বৃহস্পতিবার (৭ই ডিসেম্বর) দুপুরে নিখোঁজ হওয়া ছাত্রদের অভিভাবকগন কমলগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডাইরী করেছেন।
এরা দুজন সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলে তাদের দু’জনের উচ্চতা সাড়ে ৩ ও ৪ ফুট । গায়ের রং শ্যামলা, মুখমন্ডল গোলাকার। কোন স্ব-হৃদয়বান ব্যক্তি তাদের দু’জনের সন্ধান পেলে তাদের অভিভাবক চেরাগ মিয়া, (তারেকের পিতা) মােবাঃ নং-০১৭৪৬-৩৫৩১৪৭,
০১৭৪৭-৯২৪৮১৭। ছমদু মিয়া(শাহিদের পিতা)
মোবাঃ নং-০১৭৭৩-৬৮২৭০৮।
উক্ত মোবাইল নাম্বারের যোগাযোগ করার জন্য বিনীত অনুরোধ জানিয়েছেন তাদের অভিভাবকগণ।