রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
ফলিক খানের অর্থায়নে প্রধানমন্ত্রীর মিটানো নাম নতুন করে অঙ্কন  » «   গোলাপগঞ্জে যুবদলের ৩৯তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী পালন  » «   বিএনপি নেতা এম কে আনোয়ারের মৃত্যুতে সিলেট সরকারি কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের শোক  » «   জগন্নাথপুরে টাকা দেয়া হলেও চাল দেয়া হয়নি  » «   জগন্নাথপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ব্যবসায়ী মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে  » «   ২৬ নং ওয়ার্ড তালামীযের অভিষেক ও প্রশিক্ষণ কর্মশালা সম্পন্ন  » «   সোশ্যাল মিডিয়ায় দুই নায়িকার মেকআপ রুমের ছবি ফাঁস!  » «   কমলগঞ্জে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত  » «   জগন্নাথপুরে নুর আলীর খুনিদের ফাসির দাবিতে সোচ্চার এলাকাবাসী  » «   জগন্নাথপুরে সাংবাদিক কলির দাদীর মৃত্যুতে প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ  » «  

জগন্নাথপুরে টাকা দেয়া হলেও চাল দেয়া হয়নি



জগন্নাথপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর দিলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে সরকারি ভিজিএফ এর চাল বিতরণে অনিয়ম ও টাকা আত্মসাতের অভিযোগ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর আদায় করা টাকা রোগীকে দেয়া হলেও কম দেয়া চাল দেয়া হয়নি।
জানাগেছে, সরকার প্রতি মাসে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর লোকজনের মধ্যে জনপ্রতি ৩০ কেজি চাল ও নগদ ৫শ টাকা করে প্রদান করছে। স্থানীয় জন প্রতিনিধিদের মাধ্যমে তালিকা করে এসব চাল ও টাকা বিতরণ করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১০ অক্টোবর জগন্নাথপুর পৌরসভার কাউন্সিলর দিলোয়ার হোসেন তাঁর ওয়ার্ডের তালিকাভূক্ত জনগণের মধ্যে সরকারি ভিজিএফ এর ৩০ কেজি চাল ও নগদ ৫শ টাকা করে বিতরণ করেন।
এতে অভিযোগ উঠে পৌর কাউন্সিলর দিলোয়ার হোসেন সরকারি চাল ও টাকা বিতরণের আগের দিন ৯ অক্টোবর রাতে তালিকাভূক্ত ২২২ জনের কাছ জনপ্রতি অগ্রিম ১শ টাকা করে নিয়ে তাদেরকে টোকেন দেন। এছাড়া ৩০ কেজির পরিবর্তে ২৬ কেজি করে চাল বিতরণের অভিযোগ করা হয়।
এ ঘটনায় গত ১১ অক্টোবর ভূক্তভোগী জগন্নাথপুর পৌর শহরের হবিবপুর আশিঘর গ্রামের সিরাজ মিয়া সহ ৬০ জন স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান বরাবরে প্রদান করা হয়। যার অনুলিপি সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক, জগন্নাথপুর উপজেলা চেয়ারম্যান, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়রকে প্রদান করা হয়।
এ অভিযোগের ভিত্তিতে বিভিন্ন গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে গত শনিবার অভিযুক্ত পৌর কাউন্সিল দিলোয়ার হোসেন যে রোগীর নামে টাকা তুলে ছিলেন, সেই গাজী নামের রোগীকে টাকা প্রদান করেন। যদিও বিত্তশালীদের নামে এ টাকা দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে অভিযোগকারীরা জানান, সরকার অসহায় লোকদের টাকা ও চাল দিয়েছে। এখান থেকে টাকা তুলে অন্যকে দেয়া মানে, ভিক্ষুকের টাকা ভিখারিকে দান করা। এছাড়া রোগীকে টাকা দিলেও কম দেয়া চাল জনগণকে দেয়া হয়নি।