শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
এই মুহুর্তের খবর
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কোতোয়ালী থানার প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত  » «   জগন্নাথপুরে ছাত্রদল নেতাকে ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক করায় ১১ সদস্যের পদত্যাগ !  » «   খাদিমনগরে ইউপি সদস্য দিলুকে জড়িয়ে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন  » «   কারবালার আত্মাদান হলো জালিমের সামনে আল্লাহর বাণী প্রচারে সর্বোত্তম দৃষ্টান্ত: রেদওয়ান আহমদ চৌধুরী  » «   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতেই বিচার চালিয়ে যাওয়া ন্যায়বিচার পরিপন্থি: ফখরুল  » «   বিশ্বনাথে নারীদের ত্রি-মাসিক সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন  » «   সিলেটে শিশু অপহরণ ও ধর্ষণ : ৬ দিনপর রংপুর থেকে উদ্ধার  » «   সিলেট আদালতে স্বীকারোক্তি : ধর্ষণের পর পানিতে চুবিয়ে রুমিকে হত্যা  » «   ওসমানীনগরে প্রানীসম্পদ ও ভেটেনারি হাসপাতালের নবনির্মিত ভবন উদ্ভোধন  » «   ছাতকে সেচ্ছাশ্রমে কাঁচা সড়ক সংস্কার  » «  

হবিগঞ্জ আদালতে মেয়র আরিফের শুনানী চলছে



001সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী শুনানী শুরু হয়েছে। সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণের করেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে হবিগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণের করেন তিনি। সকাল ১১টা ৪০মিনিটে মেয়র আরিফের শুনানী শুরু হয়।

এদিকে মেয়র আরিফুর হক চৌধুরী আত্মসমর্পন করায় হবিগঞ্জে নিরাপত্তা চাদরে ঢাকা রয়েছে। আজ মঙ্গলবার সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সকাল ১০টা হবিগঞ্জ আদালতে আত্মসমর্পন করেন। এসময় তিনি বলেন, আমার ওপর মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। আমার বিশ্বাস আজও আমি নির্দোষ প্রমানিত হব, এবং এই আদালত থেকে জামিন পাব। তার আত্মসমর্পন করায় পুরো হবিগঞ্জ শহরে আইনশৃংঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আদালত পাড়া রয়েছে কঠোর নিরাপত্তা।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী আরো বলেন- তাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় জড়ানো হয়েছে। নিজেকে নির্দোষ দাবি করে আরিফ বলেন- তিনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই আদালতে আত্মসমর্পন করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ৩ ডিসেম্বর আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি’র সিনিয়র এএসপি মেহেরুন নেছা পারুল সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও হবিগঞ্জ পৌর মেয়র জিকে গউছের ঠিকানা সংশোধনের আবেদন জানান। আদালত তা গ্রহণ করে ২১ ডিসেম্বর পূণরায় সম্পূরক চার্জশিটের মাধ্যমে তা দাখিল করার নির্দেশ দেন।

এর আগে গত ১৩ নভেম্বর সিআইডি সিলেটের সিনিয়র এএসপি মেহেরুন্নেছা পারুল তৃতীয় দফায় তদন্ত শেষে ৩৫ জনকে আসামি করে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রোকেয়া আক্তারের আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এতে নতুন করে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক উপদেষ্টা হারিছ চৌধুরী, সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জি কে গউছসহ ১১ জনের নাম অন্তর্ভূক্ত করা হয়। ইতিপূর্বে দু’বার প্রদত্ত চার্জশীটে ২৪ জনকে আসামী করা হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন- সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুত্ফুজ্জামান বাবর ও হুজি নেতা মুফতি আব্দুল হান্নান।