সোমবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০ ২০
লেখালেখি ডেস্ক
২০ ফেব্রুয়ারী ২০ ২০
২:১২ পূর্বাহ্ণ
আল আমিন চৌধুরীর উন্নয়ন পরিকল্পনা: হুমায়ুন আহমেদ

শাল্লা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আব্দুল মান্নান চৌধুরী। তিনি উপজেলা চেয়ারম্যানও ছিলেন। রাজনীতির মাঠঘাট ছিল অত্যন্ত সুপরিচিত। এলাকার লোকজনও নিজের সন্তান হিসেবে ভালবাসতেন উনাকে। উনার রাজনীতির চিত্রফট ছিল ভিন্ন। গরীব অসহায় মানুষের জন্য উচ্চকণ্ঠে কথা বলতেন। তবে মানুষের মৃত্যু অনিবার্য। যুগ যুগান্তর, কাল কালান্তর থেকে মৃত্যু প্রথা চলে আসছে। এরই ধারবাহিকতায় ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে বিদায় নিলেন মায়াময় পৃথিবী থেকে। উনার মৃত্যুর পর তাঁর বাবার রাজনৈতিক হাল ধরেন ছেলে চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ (আল আমিন)। শুরু হয় রাজনৈতিক জীবন। উনার রাজনৈতিক গুরু হিসেবে উচ্চপদস্থ ছিলেন বাবু সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। উনার হাতে গড়ায় তৈরি হয় আল আমিন চৌধুরী। রাজনৈতিক জীবনে আল আমিন চৌধুরীর একটাই লক্ষ্য ছিল এলাকার উন্নয়ন ও গরীব দু:খী মানুষের পাশে দাড়িয়ে বাবার স্বপ্ন পুরণ করবেন। আজ সেই স্বপ্ন পূরণ হল। বর্তমান শাল্লা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। উনি নির্বাচনে জয়লাভ করে দায়িত্বভার গ্রহণ করার পর পরই ছুটে চলেন গ্রাম গ্রামান্তরে। শুনেন গরীব দু:খী মেহনতি মানুষের কথা। প্রতিশ্রুতি দেন এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা রাখার। সেই প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী শাল্লার বিভিন্ন গ্রামে দেয়া আশ্বাসগুলো বাস্তবায়ন করছেন। উনার মাধ্যমে আজ শাল্লার, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ রয়েছেন। তবে বাবার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে শাল্লাবাসীর জন্য সারাজীবন কাজ করে যাবেন বলে তিনি জানান। তিনি আরো জানান, আমি চেয়ারম্যান হয়েছি শাল্লাবাসীর জন্য। ক্ষমতা অপব্যহার করতে চাই না। শাসক নয়, সেবক হয়ে কাজ করতে চাই শাল্লাবাসীর জন্য।  
 

Related Posts