সোমবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০ ২০
লেখালেখি ডেস্ক
২৩ ফেব্রুয়ারী ২০ ২০
৩:২৭ পূর্বাহ্ণ
লেখিকাদের আড্ডায় সরগরম সিলেট বইমেলা

সিলেট বইমেলায় দ্বাদশতম দিনে লেখিকাদের আড্ডায় সরগরম হয়ে উঠে মেলা প্রাঙ্গণ। বেলা তিনটা থেকে মেলা শুরু হয়। সন্ধ্যায় বসে লেখিকাদের আড্ডা। আড্ডায় শুনানো হয় তাদের নিজেদের লিখা গল্প, কবিতা। এছাড়াও আড্ডায় উঠে আসে এসব গল্প কবিতা লিখার পেছনের গল্প। 

প্রায় ২০ মিনিটের প্রানবন্ত আড্ডায় অংশগ্রহন করেন লেখিকা আয়েশা মুন্নি, ফরজানা ইসলাম নিলু, সেনুয়ারা আক্তার পিনু। সঞ্চালনায় ছিলেন ফৌজিয়া আক্তার।   

বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বেলা তিনটা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত নগরীর চৌহাট্টাস্থ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে চলে বইমেলায়। প্রতিদিনের ন্যায় আজও প্রায় সব ধরনের শ্রেণী পেশার মানুষের সমাগম ঘটে মেলায়। 

বিকাল ৪ টায় ‘আরশির ভিতর পড়শির জীবন’ বইয়ের লেখিকা শিরিন ওসমান তার বই লেখার গল্প শুনানা। পরে তিনি সিলেট বন্ধুসভার সদস্যসহ ১০০জন পাঠককে তার এই বই উপহার হিসেবে তুলে দেন। 

আজ মেলায় ৫টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। লেখিকা কাউছার জাহান লিপির ‘পাতাবাহার মন’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন শেষে আহমদ সালেহের সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশগ্রহন করেন কবি ও গবেষক অধ্যাপক নৃপেন্দ্র লাল দাশ, রুপালী ব্যাংকের আঞ্চলিক প্রধান মো. নোমান মিয়া, লেখক ও ব্যাংক কর্মকর্তা পার্থ তালুকদার। 

লেখিকা রেখা পাঠকের ‘ছোট কথায় বড়ো ব্যাথা’  বইয়ের মোড়ক উন্মোচন শেষে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন কবি এ কে শেরাম ও মনোজ বিকাশ দেব রায়। মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নাজমুল হক নাজু।

রসময় ভট্টাচার্যের উপন্যাস ‘অন্যরকম মানুষ’ অঞ্জন রায় সঞ্জয়ের কাব্যগ্রন্থ ‘এক নদী কত জল’ ও তপন মজুমদারের কাব্যগ্রন্থ ‘হৃদয়ের কথারা মেলেছে ডানা’ এর মোড়ক উন্মোচন শেয়ে আলোচনায় অংশ নেন কবি ও গবেষক অধ্যাপক নৃপেন্দ্র লাল দাশ ও নাজমুল হক নাজু। মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কবি পুলিন রায়।

মেলায় প্রতিদিনের সেলফি প্রতিযোগীতার বিজয়ী তৌকির আহমেদ শাওন হাতে পুরস্কার তুলে দেন বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সিলেট বিভাগীয় শাখার সভাপতি মামুন হাসান।

উল্লেখ্য, ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন বেলা তিনটা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত চৌহাট্টাস্থ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মেলা চলবে। এই মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত। বইমেলায় এবারও সিলটিভি প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে নতুন বইয়ের খবর নিয়ে লাইভ দিবে। এছাড়াও প্রতিদিন মেলায় থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সাহিত্য আড্ডা, আলোচনা সভা, শিশুদের আবৃত্তি, চিত্রাঙ্কন, ফটোগ্রাফি ও সেলফি প্রতিযোগিতা ও নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন। 

মেলায় ঢাকা ও সিলেটের ২৪টি প্রকাশনা ও বই বিপণন প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে এবছর সিলেট বইমেলা উৎসর্গ করা হয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে। মেলা আয়োজনে সহযোগিতা করছে সিলেট সিটি করপোরেশন।-বিজ্ঞপ্তি

Related Posts