মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ১ ১৪২৬   ১৭ মুহররম ১৪৪১

৪৩

রাজনগরে প্রবাসীর স্ত্রীকে জিম্মি করে টাকা -স্বর্ণালঙ্কার লুট

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৯ ০৭ ৩৮  

ডেস্ক নিউজ:: মৌলভীবাজারের রাজনগরে এক গৃহবধুকে জিম্মি করে নগদ টাকা পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ঔ গৃহবধৃু বাদী হয়ে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট এর আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ এ ঘটনায় এখনো কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি। মামলাটি তদন্তের জন্য আদালত পিবিআইকে দায়িত্ব দিয়েছেন। আসামীদের অব্যাহত হুমকিতে গৃহবধু তার পিত্রালয় মোগলাবাজারে আশ্রয় নিয়েছেন। 
অভিযোগ থেকে জানা যায়, রাজনগর থানার উত্তরভাগ ইউনিয়নের চেলারচক গ্রামের প্রবাসী জমসেদ মিয়ার স্ত্রী রাশেদা আক্তার শিউলি সন্তানাদি ও শ^শুরকে নিয়ে শান্তিতে বসবাস করে আসছিলেন। কিন্তু তার ভাসুর সুন্দর মিয়া খুবই সন্ত্রাসী ও লোভী প্রকৃতির লোক হওয়ায় সে প্রায়ই শিউলিকে জ¦ালাতন করতো। সম্পত্তি আত্বসাতের জন্য সুন্দর নিজের পিতার উপর ও হামলা চালিয়েছে। এ হামলার ঘটনায় পিতার দায়েরকৃত মামলায় ও সুন্দরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। গত ৩ সেপ্টেম্বর রাত প্রায় ১২ টার দিকে সুন্দর তার সহযোগীদের নিয়ে শিউলি বেগমকে দরজা খুলে দিতে বলে। তিনি তখন সরল মনে দরজা খুলে দিলে সুন্দর গংরা জোরপূর্বক ঘরে প্রবেশ করে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে আলমারির চাবি নিয়ে নগদ দেড় লক্ষ টাক এবং নয় ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। একই সাথে মূল্যবান দলিলপত্র ও লুট করে নিয়ে যায় তারা। এ সময় হুমকি দিয়ে বলে যায় মামলা করলে প্রাণে মেরে ফেলবে। এ সময় সুন্দরের সাথে তার সহযোগী জয়নুল ও দুদু মিয়াকে চিনতে পারেন শিউলি। এ ঘটনার পরদিন উত্তরভাগ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছালিক মিয়া ও স্থানীয় ইউপি সদস্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তারা ঘটনার সত্যতা পেয়ে মামলা দায়েরের জন্য শিউলি বেগমকে বলে যান। এ সময় লুটপাঠকারী জয়নুল ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট ঘটনার সাথে নিজের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। নির্যাতিতা শিউলি বেগম এ ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার এবং বিষয়টির সুষ্টু তদন্তের জন্য সিলেট রেঞ্জের ডিআইজিসহ প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন। 
 

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর