বুধবার   ২১ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৫ ১৪২৬   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৩৮১

মৌলভীবাজারে সাংবাদিককে দেখে নেয়ার হুমকি!

মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে ঘুষ প্রাদানের ভিডিও ভাইরাল!

প্রকাশিত: ১ জুলাই ২০১৯ ২০ ০৮ ৫৫  

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:: মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে কর্মকর্তাকে ঘুষ প্রদানের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করায় এক সাংবাদিককে ফোন করে মামলা ও দেখে নেওয়ার হুমকি দিলেন গাড়ি ব্যবসায়ী ও আওয়ামীলীগ নেতা। ফোন প্রদানকারী ওই ব্যক্তির নাম মতিউর রহমান।
মতিউর সাপ্তাহিক সীমান্তের ডাকের বার্তা সম্পাদক ও সিলেটটুডে২৪.কম এর প্রতিনিধি এস আলম সুমনকে সোমবার দুপুর পৌনে তিনটায় মোবাইল ফোনে এ হুমকি প্রদান করেন।

জানা যায়, রোববার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মৌলভীবাজার বিআরটিএ অফিসে এক ব্যক্তির হাত থেকে নগদ টাকা লেনদেনের ভিডিও ভাইরাল হয়। ভিডিওটি পরে এস আলম সুমন তাঁর পত্রিকার ফেসবুক পেইজ ‘সাপ্তাহিক সীমান্তের ডাকে’ প্রকাশ করেন। এসময় ভিডিওটি ব্যাপক ভাইরাল হয়। এর প্রেক্ষিতে মতিউর রহমান মোবাইলে এস আলম সুমনকে ফোন করে এ হুমকি প্রদান করেন।

মতিউর রহমান মোবাইলে এস আলম সুমনকে প্রথমে জিজ্ঞেস করেন এ ভিডিওটি কেন ফেসবুকে দিলেন। পরে মতিউর বলেন আমি গাড়ির শোরুমের ব্যবসায়ী। মৌলভীবাজার জেলায় আমাকে একনামে চেনে। আমার ভিডিও কেন প্রকাশ করলেন। আমি আপনার বিরুদ্ধে মামলা করবো এবং দেখে নেবো। পরে এস আলম সুমন মতিউরকে জিজ্ঞেস করেন আপনি কেনো বিআরটিএ অফিসে নগদ টাকা লেনদেন করতে গেছেন। জবাবে মতিউর বলেন কোন আইনে আছে নগদ টাকা লেনদেন করা যাবেনা। আমি আমার টাকা দেয়ার ভিডিও  রেকর্ড ও ফেসবুকে দেওয়ায় সাইবার ট্রাইব্যুনাল আইনে মামলা করবো ও দেখে নেবো। আমি বিদেশে গাড়ি ব্যবসা করেছি দেশে গাড়ি ব্যবসা করছি। আমাকে এক নামে সবাই চেনে। আমাকে চেনোনা এর জন্য দেখে নেবো। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সাংবাদিক এস অালম সুমন পুরো জেলার সকল গণমাধ্যমকর্মীদের অবগত করেছেন। এ ব্যাপারে থানায় সাধারণ ডায়েরি করবেন বলে জানিয়েছেন।

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর