বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

৫৮৮

বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক বিকেলে 

প্রকাশিত: ১৫ জুন ২০১৯ ১৩ ০১ ৫৬  

 

জাতীয় ডেস্ক ::
বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম-জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক ডাকা হয়েছে। শনিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হবে।

শনিবার (১৫ জুন) বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেসউইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার ও শায়রুল কবির খান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

দেশের চলমান রাজনীতি, আগামী দিনের আন্দোলন কর্মসূচি, দল পুনর্গঠন, জোটের অখণ্ডতা রক্ষায় করণীয় এবং বিএনপির সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের চলমান অস্থিরতা দূর করার বিষয় আজকের বৈঠকে আলোচনা হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

দলীয় সূত্রমতে, বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক ডাকার এখতিয়ার কেবল চেয়ারপারসনের। তবে তার অবর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান স্থায়ী কমিটির বৈঠক ডাকতে পারেন। যেহেতু চেয়ারপারসন কারাগারে এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নির্বাসনে, সে কারণে স্থায়ী কমিটির সদস্যরা বৈঠকে বসলেও তা স্থায়ী কমিটির আনুষ্ঠানিক বৈঠক হিসেবে গণ্য করা হয় না।

আর এ কারণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর প্রায় প্রতি সপ্তাহের শনিবার স্থায়ী কমিটির সদস্যরা গুলশান কার্যালয়ে অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করতেন। কিন্তু গত ২৯ এপ্রিল বিএনপির নির্বাচিত ৪ সংসদ সদস্য শপথ গ্রহণের পর আর বৈঠক হয়নি। প্রায় দেড় মাস পর আজ আবার বৈঠকে বসছেন তারা।

২০১৬ সালের ১৯ মার্চ বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের পর দলের ১৯ সদস্য বিশিষ্ট স্থায়ী কমিটির ২টি পদ ফাঁকা রেখে ১৭টি পদ পূরণ করে স্থায়ী কমিটি ঘোষণা করা হয়।এতে পদাধিকার বলে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্থায়ী কমিটির সদস্য।

বাকি ১৪ জনের মধ্যে তরিকুল ইসলাম, আ স ম হান্নান শাহ, এমকে আনোয়ার পরলোকগত হয়েছেন। সালাহউদ্দিন আহমেদ রয়েছেন ভারতের শিলংয়ে। অসুস্থতার কারণে ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান দলীয় বৈঠকে খুব একটা আসেন না। ঢাকায় অবস্থান এবং সুস্থ থাকা সাপেক্ষে বাকি ৯ জন সব ধরনের বৈঠকে উপস্থিত থাকেন।

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর