রোববার   ২০ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৪ ১৪২৬   ২০ সফর ১৪৪১

৪১৪

প্রাণের ভয়ে দেশে ফিরছেন না সাজেদ মিয়া!

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৪ ০২ ১৩  

স্টাফ রিপোর্ট:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার কেশবপুর গ্রামের মৃত দানিছ উল্লাহর ছেলে সাজেদ মিয়া। বর্তমানে বসবাস করছেন যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার শহরে। গ্রামের বাড়িতে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে কিছু জায়গা সম্পত্তি পেয়েছেন। সাজেদ মিয়ার অবর্তমানে দেশের স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি দেখাশোনা করেন তার ভাইয়েরা। কিন্তু সাজেদ মিয়ার সম্পত্তি আত্মসাতের চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে তার গ্রামেরই কিছু সন্ত্রাসী।

যাদের উপদ্রবে শুধু সাজেদের পরিবার নয়, পুরো কেশবপুর গ্রামবাসী অতিষ্ঠ। প্রাণভয়ে সকলে নীরবে অত্যাচার সহ্য করছে। প্রতিকার চেয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দ্বারস্থ হয়েছেন সাজেদ মিয়া। ম্যানচেস্টারস্থ বাংলাদেশ সহকারী হাই কমিশনের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন।

সাজেদ মিয়ার ভাষ্য. কেশবপুরের মৃত আজব আলীর ছেলে জিলু মিয়া, মৃত রশিদ উল্লাহ’র ছেলে কালা আসকির, মৃত বাটুলের  ছেলে রমজান মিয়া, মৃত উবুল মিয়ার ছেলে তেরা মিয়া, মৃত ধাকুর ধনের ছেলে কাদির মিয়া দীর্ঘদিন থেকে সাজেদ মিয়ার সম্পত্তি, ঘরবাড়ি, গাছপালা এবং ফসলাদি নষ্ট করাসহ তার পরিবারের লোকজকে নানা ভাবে অত্যাচার ও নির্যাতন করে আসছে। সন্ত্রাসীদের ভয়ে নিজ দেশে, নিজ গ্রামে ফিরতে পাছেন না প্রবাসী সাজিদ মিয়া। তাকে বিভিন্নভাবে প্রাণনাশের হুমকি এবং চাঁদা দাবি করে আসছে এই ভূমিখেকো চক্রটি। এছাড়া সাজেদ মিয়ার ভাইদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে এরা। স্থানীয় বিএনপি’র ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি পরিচয়ে সম্পত্তি লুটপাটের চেষ্টা চালাচ্ছেন কালা আসকির। সাজেদ মিয়া আশঙ্কা করছেন দেশে ফিরলে তাকে হত্যাও করা হতে পারে। জানমালের সঙ্কায় ভীত সাজেদ মিয়া কোনো উপায়ান্তর না দেখে অবশেষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দ্বারস্ত হয়েছেন।

প্রবাসী সাজেদ মিয়া জানান, বিএনপি নেতা মাদক ব্যবসায়ী কালা আসকির এর হুমকিতে দেশে আসতে পারছি না।   এমনকি আমার পরিবারের সদস্যদের মাদক দিয়ে ফাসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে।  দেশে আমার পরিবার অনিরাপদ অবস্থায় আছে। যে কোনো সময় তাদের ওপর হামলা চালাতে পারে সন্ত্রাসীরা। আমাকে দেশে ফিরতে বাধা দেয়া হচ্ছে। এমন অবস্থায় অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছি। আমি আমার, আমার পরিবার এবং আমার সম্পত্তির নিরাপত্তা চাই। আমি প্রশাসনের সহযোগিতা চাই।   

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর