শনিবার   ১৯ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৪ ১৪২৬   ১৯ সফর ১৪৪১

৭৬৯

পাত্রখোলা চা বাগানে মধ্যরাতে চা শ্রমিককে কুপানোর অভিযোগ

আসহাবুর ইসলাম শাওন,কমলগঞ্জ:: 

প্রকাশিত: ২০ জুলাই ২০১৯ ১৭ ০৫ ০২  

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পাত্রখোলা চা বাগানে চা শ্রমিকরা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এ বিভক্তির কারণে বৃহস্পতিবার সকালে এক সাধারণ চা বাগান শ্রমিককে প্রহারের অভিযোগে শুক্রবার সকাল থেকে পাত্রখোলা চা বাগানে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছিল। এ উত্তেজনায় বিকালে পাত্রখোলা চা বাগানে চা শ্রমিকদের দুই পক্ষের সৃষ্ট সংঘর্ষে ২ শ্রমিক আহত হয়েছে। পরবর্তীতে পুলিশী হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ হলেও শুক্রবার রাতে একদল চা শ্রমিক প্রতিপেক্ষর উপর লিখিত অভিযোগ দিয়ে চা বাগানে ফিরে রাত ১টায় কুপিয়ে প্রতিপক্ষের ১ চা শ্রমিককে গুরুতরভাবে আহত করে। কুপানোয় আহত চা শ্রমিকের নাম মোহন লাল বাউরী। সে পাত্রখোলা চা বাগানের বাজার লাইনের মাখন বাউরীর ছেলে এবং এ চা বাগানের সে লাইন পাহারাদার।  প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হলে কমলগঞ্জ থানার পুলিশ তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। তার অবস্থা আশঙ্কা জনক হলে দ্রুত তাকে রাতেই সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। জানা যায়, শুক্রবার রাত ১০টায় আহত আনু কুর্মীর পক্ষে একদল চা শ্রমিক কমলগঞ্জ থানায় উপস্থিত হয়ে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। থানায় অভিযোগ দায়ের করে রাত ১টায় পাত্রখোলা চা বাগানে ফিরে তাদের উপর হামলা হতে পারে ভেবে বাজার লাইন পাহারাদার মোহন লাল বাউরীকে একা পেয়ে কুপিয়ে আহত করে। এ ঘটনার খবর পেয়ে রাতে প্রথমে চা বাগান প্রধান ব্যবস্থাপক শফিকুর ইসলামসহ কর্মচারীরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। পরে থানার পুলিশের একটি দল এসে গুরুতর আহতাবস্থায় মোহন লাল বাউরীকে উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর থেকে পাত্রখোলা চা বাগানে কমলগঞ্জ থানা ও মৌলভীবাজার পুলিশ লাইন থেকে অতিরিক্ত ডাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ মোতায়ের পর উভয় পক্ষের নেতৃস্থানীয় চা শ্রমিকরা এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। পাত্রখোলা চা বাগান ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম ২ দিন ধরে এ চা বাগানের শ্রমিকদে মাঝে উত্তেজনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার মধ্যরাতে একদল চা শ্রমিক লাইন পাহারাদার মোহন লাল বাউরীকে কুপিয়েছে। কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আরিফুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এখন পাত্রখোলা চা বাগানে থানার পুলিশসহ ডাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা আছে। তিনি স্পষ্ট কিছু না বললেও এ চা বাগানের শ্রমিকরা দ্,ুভাগে বিভক্ত বলে জানান।
 

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর