রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৬ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

৪১৮

ধর্মপাশায় ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ১৪৪ ধারা জারি

প্রকাশিত: ৩ জুন ২০১৯ ১৪ ০২ ৪২  

ধর্মপাশা প্রতিনিধি::  সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলা ছাত্রলীগের দুই পরে নেতাকর্মীরা একই স্থানে একই সময়ে পৃথক পৃখক কর্মসূচি আহ্বান করায়  উপজেলা পরিষদ এলাকায় গতকাল  রোববার বিকেল তিনটা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ১৪৪ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন। ওইদিন বিকেল পাঁচটার দিকে  উপজেলার সদর বাজারে মাইকিং করে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।         
      উপজেলা প্রশাসন,ধর্মপাশা থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি কর্তৃক অনুমোদিত ধর্মপাশা উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির পক্ষ থেকে সপ্তাহ খানেক ধর্মপাশা উপজেলা পরিষদ গণমিলনায়তেন গতকাল রোববার  ইফতারোত্তর আলোচনা সভা,  দোয়া ও ইফতার মাহফিল করার জন্য উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে অনুমতি পায়। উ উপজেলা পরিষদ গণমিলনায়তনের ভবনের চাবিও তাঁদের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি রাখা হয় বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব খানকে। অনুষ্ঠান সফল করার লক্ষে উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সর্বরকম প্রস্তুতি নিচ্ছিল। অপরদিকে সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক কমিটি কর্তৃক অনুমোদিত উপজেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে একই স্থানে একই সময়ে ইফতারোত্তর  আলোচনা সভা , দোয়া ও ইফতার মাহফিলের করার জন্য গতকাল রোববার সকাল ১০টার দিকে লিখিতভাবে ইউএনর কাছে আবেদন করা হয়। দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হতে পারে এমন খবর পেয়ে  ধর্মপাশা থানার একদল পুলিশ ওইদিন বেলা দেড়টা থেকে উপজেলা পরিষদ এলাকায় অবস্থান নেয় এবং উপজেলা পরিষদ এলাকার তিনটা গেইট বন্ধ করে দেয়। 
            সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি কর্তৃক  অনুমোদিত ধর্মপাশা  উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীর বিকেল চারটার দিকে  উপজেলা পরিষদ গণমিলনায়তে যাওয়ার জন্য  উপজেলা পরিষদের পুকুর পাড়ে যান। এ সময় উপজেলা পরিষদ গণমিলনায়তনে ১৪৪ধারা জাারি করা হয়েছে জানিয়ে তাদেরকে সেখানে যেতে বাধা দেয় পুলিশ। ১৪৪ধারা জারির কথা জানতে পেরে তাঁরা সেখান থেকে চলে যান। এ সময় সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্ব্ায়ক কমিটি কর্তৃপক্ষ অনুমোদিত উপজেলা ছাত্রলীগের কোনো নেতাকর্মীকে সেখানে দেখা যায়নি।
              সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি কর্তৃক অনুমোদিত ধর্মপাশা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আল আমিন খান বলেন, আমরা প্রশাসন থেকে অনুমতি ইফতারোত্তর আলোচনা সভা, দোয়া ও ইফতার মাহফিল  অনুষ্টানের  আয়োজন করেছিলাম। কিন্তু প্রশাসন রহস্যজনক ভাবে উপজেলা পরিষদ এলাকায় ১৪৪ধারা জারি করেছে। ফলে আমরা স্থান পরিবর্তন করে আমাদের নির্ধারিত কর্মসূচি পালন করেছি।
সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক কমিটি কর্তৃক অনুমোদিত ধর্মপাশা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক দাবি করে মণিরুজ্জামান মোহন বলেন, ১৪৪ধারা জারি করায় আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে আমরা কর্মসূচি  পালনে স্থান পরিবর্তন করেছি।
            ধর্মপাশা থানার ওসি এজাজুল ইসলাম বলেন, উপজেলা  ছাত্রলীগের দুই পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে পৃথক পৃথক কর্মসূচি নিয়ে সংঘর্ষ হওয়ার আশঙ্কায় সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল।
       ইউএনও মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান বলেন, উপজেলা ছাত্রলীগের দুই পক্ষের নেতাকর্মীরা একই স্থানে একই সময়ে কর্মসূচি দেওয়ায়  অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে রোববার বিকেল তিনটা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপজেলা পরিষদ এলাকায় ১৪৪ধারা জারি করা হয়েছে। 

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর