সোমবার   ১৯ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৩ ১৪২৬   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৫৪

জগন্নাথপুরে অবশেষে জমেছে পশুর হাট: দাম অনেক বেশি

মো.শাহজাহান মিয়া,জগন্নাথপুর::

প্রকাশিত: ১০ আগস্ট ২০১৯ ১৭ ০৫ ১৭  

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে অবশেষে জমে উঠেছে কোরবানীর পশুর হাট। তবে অন্য বছরের তুলনায় এবার দাম অনেক বেশি। দাম অনেকের সাধ্যের বাইরে চলে গেছে। বাজেটে ঘাটতি পড়েছে। শুধু কোরবানীর গরু কিনতে গিয়ে অনেকে পুরো ঈদের হিসাব মেলাতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন। তবুও দেশী পছন্দের গরু পেয়ে অনেকে আবার খুশি। এমন অভিমত ক্রেতাদের। তবে বিক্রেতাদের দাবি এবার বিদেশী গরু না থাকায় দেশী ভাল মানের গরু হওয়ায় অন্য বছরের তুলনায় দাম একটু বেশি। 
৯ আগষ্ট শুক্রবার জগন্নাথপুর উপজেলার সব থেকে বড় ও নামীদামী পশুর হাট বসেছিল জগন্নাথপুর উপজেলার রসুলগঞ্জ বাজারে। হাটে ছিল হাজার-হাজার মানুষের সমাগম। রসুলগঞ্জ বাজার ও বাজারের আঙ্গিনা সহ সর্বত্র এলোমেলো ভাবে ছিল পশুর লাইন।
এ সময় গরু কিনতে আসা ক্রেতাদের মধ্যে অনেকে বলেন, গত বছরও ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে ভাল মানের বড় একটি গরু কিনেছিলাম। তবে এবার এ ধরণের একটি গরু কিনতে ৭০ হাজার থেকে ৯০ হাজার টাকা লাগছে। তখন ক্রেতাদের এমন অভিযোগের উত্তরে অনেক বিক্রেতা বলেন, অন্য বছর বাজারে বিদেশী গরু থাকায় বাজার মন্দা ছিল। এবার বিদেশী গরু না থাকায় দেশী ভাল মানের গরুর সংকট থাকায় দাম বেড়েছে। এরপরও বেশি দাম দিয়ে হলেও দেশীয় ভাল মানের ও পছন্দের গরু কিনতে পেরে খুশি হয়েছেন অনেকে। 
এদিকে-১০ আগষ্ট শনিবার জগন্নাথপুর উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ও সড়কের আঙ্গিনায় অস্থায়ী ভাবে জমে উঠা ছোট ছোট হাটে পশু বেচাকেনা হচ্ছে। তবে ১১ আগষ্ট রোববার সর্বশেষ বড় পশুর হাট বসবে জগন্নাথপুর বাজারের হেলিপ্যাড মাঠে। তবে এখানে জায়গা কম থাকায় হেলিপ্যাড মাঠ ছাড়িয়ে পৌর শহরের প্রধান সড়কে বসে পশুর হাট। ফলে অনেক সময় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে মানুষের ভোগান্তির শেষ থাকে না। তাই মানুষ ও যানবাহন চলাচলের সুবিধা রেখে হাট বসানোর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানিয়েছেন ভূক্তভোগী জনতা।
এছাড়া রোববার সর্বশেষ দিনে জগন্নাথপুর উপজেলার সকল হাট-বাজারে অস্থায়ী পশুর হাট বসবে বলে স্থানীয়রা নিশ্চিত করেছেন। যারা এখনো পশু কিনেননি, তারা সর্বশেষ দিনে কিনতে মরিয়া হয়ে উঠবেন এবং বেশি দাম না হেকে বিক্রেতারাও বিক্রি করতে চাইবেন। এমনটা প্রতি ঈদের আগের দিন হয়ে থাকে। এবারো তা হবে বলে ক্রেতা ও বিক্রেতারা জানান।
 

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর