সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৭ ১৪২৬   ২৩ মুহররম ১৪৪১

১১২৪

ছুটির পর বাড়ি ফেরা হল না মাজিদের, মামলার বাদী প্রধান শিক্ষক

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১ ০১ ২৯  

মুহাম্মদ হাবিলুর রহমান জুয়েল, ফেঞ্চুগঞ্জ:: ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার কাসিম আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির দুই ছাত্র সাইফুর রহমান সায়েমও মাজিদ ইসলাম দুপুর ১২ঃ৫০ টায় ব্যক্তিগত সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে মাথায় আঘাত পেয়ে মাজিদ মারা যায়। মাজিদকে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা সাস্থ কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পর তাকে দেখতে আসেন তার স্বজনরা।
নিহত মাজিদের বাড়ি উপজেলার মল্লিকপুর গ্রামে। তার পিতার নাম আলতা মিয়া। অভিযুক্ত সাইফুর রহমান সায়েম এর বাড়ি মনরটুক গ্রামে। তার পিতার নাম আমির আলী। অভিযুক্ত সায়েমকে ঘটনাস্থল থেকে গ্রেফতার করে ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ আহাদুজ্জামান নিজে বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কিন্তু এর মূল একটি ফাক থেকেই গেছে। আমরা সাধারনত জানি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের বৃহস্পতিবার অর্ধপাঠ হয়৷ অর্থাৎ দুপুর একটায় ছুটি। অথচ মাজিদ মারা যায় আনুমানিক দুপুর একটায় বা ১২ঃ৫০ মিনিটে বলে শিক্ষকরা সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন। অথচ ছুটির দশ মিনিট বা চল্লিশ মিনিট পূর্বে থেকেই ক্লাসে থাকার কথা যেকোনো শিক্ষকদের। তাহলে কখন ঘটল ঘটনা। সঠিক তথ্য নিশ্চিত করতে প্রধান শিক্ষক ঐ শ্রেণির কোন শিক্ষার্থীর বক্তব্য না নিয়ে কেন মনগড়া উক্তি দিলেন। আবার প্রথমেই বললেন এটা অনাকাঙ্ক্ষিত আবার পরে কেন তিনি নিজেই বাদী?
আজ শুক্রবার বাদ আছর তার জানাযা সম্পন্ন হয়েছে৷ এতে নিহতের স্বজনদের দাবী পোস্ট মাডাম রিপোর্টে একটি নয় অনেকগুলো আঘাত পাওয়া গেছে।

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর