শনিবার   ১৯ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৪ ১৪২৬   ১৯ সফর ১৪৪১

১৩৪

চুনারুঘাটে বন্ধুকযুদ্ধে এক ডাকাত নিহত আহত ৩ পুলিশ

প্রকাশিত: ৫ আগস্ট ২০১৯ ১৯ ০৭ ৩৪  

এম এস জিলানী আখনজী, চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) থেকে ॥ হবিগঞ্জ চুনারুঘাটে বন্ধুকযুদ্ধে সোলেমান মিয়া (৩০) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছেন পুলিশের ৩জন সদস্য। ঘটনাটি ঘটেছে (৪ আগষ্ট) রবিবার দিনগত রাত ৩টায় উপজেলার শানখলা ইউনিয়নের ডেউয়াতলী কালিনগর গ্রামে। পরে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বন্ধুকযুদ্ধে নিহত ডাকাতের বাড়ী মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেরার বাসিন্দা।চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ নাজমুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, রাতে কালিনগর এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল ডাকাতের দল। এ সংবাদটি পেয়ে অভিযান চালালে চুনারুঘাট থানা পুলিশের সঙ্গে তাদের গোলাগুলি হয়। এসময় এক ডাকাতসহ পুলিশের ৩জন সদস্য আহত হন। আহত ডাকাতকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত পুলিশের ৩জন সদস্যরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও ৪ রাউন গুলিসহ পাঁচ-ছয়টি দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। আজ (৫ আগষ্ট) সোমবার দুপুরে হবিগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ্ প্রেসব্রিফিং করেন। উল্লেখ্য’ যে রোববার (৪ আগস্ট) গভীর রাতে দেউন্দি চা বাগানের ডাক্তার বাংলোতে দুর্ধর্শ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতরা ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রথমে দারোয়ান রবি মুন্ডা ও সন্তোষকে জিম্মি করে রশি দিয়ে বেঁধে বাংলোতে থাকা ডা. অনিমেষ গুলদার (৪৫), স্ত্রী সরমিস্ট কর্মকার ও চার বছরের ছেলে অরিত্র গুলদারের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে পাঁচ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। গত (৪ আগষ্ট) রবিবার সাকালে খবর পেয়ে সিলেট বিভাগের ডিআইজি কামরুল ইসলাম, অ্যাডিশনাল ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র, হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসএম রাজু আহমেদ, চুনারুঘাট-মাধবপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন, চুনারুঘাট থানার ওসি নাজমুল হক ও ওসি তদন্ত আলী আশরাফ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এর আগেও চুনারুঘাটে একাধিক ডাকাতির ঘটনা ঘটলে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি হয়।
 

Dream Sylhet
ড্রীম সিলেট
ড্রীম সিলেট
এই বিভাগের আরো খবর